অভিযোগ প্রমাণ না হলে শামীমের প্রার্থিতা বাতিল হতে পারে

 নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে জঙ্গি হামলা হতে পারে, মেয়র পদপ্রার্থী শামীম ওসমানের এমন আশঙ্কা তদন্ত করে সাত দিনের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দিতে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে চিঠি দিয়েছে নির্বাচন কমিশন। আজ কমিশনের উপসচিব আবদুল বাতেন নির্বাচন কমিশনের পক্ষে স্বরাষ্ট্রসচিবের কাছে এই চিঠি পাঠান।
সিটি করপোরেশন (নির্বাচনী আচরণ) বিধিমালার-২০১০-এর ৬(১০) ও ১০ অনুচ্ছেদের আলোকে এ তদন্ত করতে বলা হয়েছে। বিধিমালার ৬(১০) অনুচ্ছেদে বলা হয়েছে, কেনো প্রার্থী বা তাঁর পক্ষে অন্য কোনো ব্যক্তি নির্বাচনী প্রচারণাকালে ব্যক্তিগত চরিত্র হনন করে বা কোনো ধরনের তিক্ত বা উসকানিমূলক বক্তব্য দিতে পারবেন না। নির্বাচন কমিশন ‘জঙ্গি হামলার আশঙ্কা’কে উসকানিমূলক এবং ভোটারদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়ানোর অপচেষ্টা হিসেবে মনে করছে।
নির্বাচন কমিশন সূত্র জানিয়েছে, শামীম ওসমানের বক্তব্য অসত্য প্রমাণিত হলে নির্বাচনে বিজয়ী হলেও তাঁর প্রার্থিতা বাতিল হতে পারে। নির্বাচন কমিশনের উপসচিব আবদুল বাতেন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে চিঠি পাঠানোর বিষয়টি আজ সন্ধ্যায় প্রথম আলোকে নিশ্চিত করেছেন।
স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে পাঠানো চিঠিতে বলা হয়, নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে একজন প্রার্থী নির্বাচনে জঙ্গি হামলা হতে পারে বলে প্রচারণা চালাচ্ছেন। ওই প্রার্থীর কাছে এ ব্যাপারে সুনির্দিষ্ট তথ্য রয়েছে বলেও তিনি দাবি করছেন। এ ব্যাপারে তিনি নারায়ণগঞ্জ সদর থানায় জিডিও করেছেন। তাঁর এই প্রচারণা ভোটার ও প্রার্থীদের মধ্যে আতঙ্ক সৃষ্টি করেছে। এতে নির্বাচনের শান্তিপূর্ণ পরিবেশ নষ্ট হওয়ার আশঙ্কা তৈরি হয়েছে। তাই বিষয়টি তদন্ত করে সাত দিনের মধ্যে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে।
প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) এ টি এম শামসুল হুদা এ ব্যাপারে প্রথম আলোকে বলেন, অভিযোগকারী ওই প্রার্থীর অভিযোগ প্রমাণিত না হলে তাঁর বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে। আইন অনুযায়ী তাঁর প্রার্থিতাও বাতিল হতে পারে। এমনকি নির্বাচনে জিতে গেলেও তিনি মেয়র হওয়ার যোগ্যতা হারাবেন। নির্বাচনী আইনেও ওই বিধান রয়েছে।
নির্বাচন কমিশনার এম সাখাওয়াত হোসেন প্রথম আলোকে বলেন, নির্বাচনী আইন ও বিধিমালা অনুসারেই স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে তদন্ত করে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে। তিনি বলেন, একজন প্রার্থী গণমাধ্যমে এবং থানায় জিডি করে বলেছেন, জঙ্গি হামলা হতে পারে এবং এ ব্যাপারে তাঁর কাছে সুনির্দিষ্ট তথ্য রয়েছে। এটি একটি ভয়ংকর তথ্য। এ বক্তব্য ভোটারদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়েছে। ঘটনাটি অসত্য হলে তাঁর প্রার্থিতা বাতিল হতে পারে। এমনকি নির্বাচনে বিজয়ী হলেও তিনি মেয়র হওয়ার যোগ্যতা হারাতে পারেন। তিনি বলেন, একজন প্রার্থী এ অভিযোগ করলেও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অবশ্য গণমাধ্যমকে বলেছেন, শুধু নারায়ণগঞ্জ নয়, দেশের কোথাও জঙ্গি হামলার কোনো আশঙ্কা নেই।

 

সূত্রঃ প্রথম আলো | ২৯ অক্টোবর ২০১১

This entry was posted in প্রথম আলো. Bookmark the permalink.

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s